ঢাকা সিটির সকল বাসের তালিকা, বাসের রুট ও সার্ভিসসমূহ

0
2662

ঢাকার বাসিন্দাদের কর্মসূত্রে বা জীবিকার তাগিদে ঢাকার মধ্যে একস্থান থেকে অন্যস্থানে যেতে চাইলে বাসে চড়তে হয়। ঢাকার মধ্যে চলাচলকারী বাস সার্ভিসগুলো সিটি বাস নামেই পরিচিত। ঢাকার একাধিক রুটে অসংখ্য সিটি বাস চলাচল করে। যাত্রীদের সেবার মান অনুযায়ী ঢাকায় তিন ধরনের বাস সার্ভিস রয়েছে। এগুলো হল সিটিং সার্ভিস, কাউন্টার সার্ভিস ও লোকাল বাস সার্ভিস।

ঢাকার সিটি বাস সার্ভিস রুটগুলো হলোঃ

প্রজাপতি পরিবহন, নিউ পল্লবী এক্সপ্রেস, কনক পরিবহন।
রুটঃ গাবতলি-মিরপুর ১-মিরপুর ১০-কালশি-বিশ্বরোড-এয়ারপোর্ট-উত্তরা-আব্দুল্লাহপুর।

বসুমতি পরিবহন, বি আর টি সি।
রুটঃ গাবতলি-মিরপুর ১-মিরপুর ১০-কালশী-বিশ্বরোড-এয়ারপোর্ট-উত্তরা-আব্দুল্লাহপুর-টঙ্গী-গাজীপুর।

রবরব পরিবহন
রুটঃ গাবতলি-মিরপুর ১-মিরপুর ১০-কালশী-বনানী-গুলশান ২-গুলশান ১-বাড্ডা লিংক রোড।

জাবালে নুর পরিবহন ২
রুটঃ গাবতলি-মিরপুর ১-মিরপুর ১০-কালশী-কুড়িল ফ্লাইওভার-নতুন বাজার।

আকিক পরিবহন
রুটঃ গাবতলি-মিরপুর ১-মিরপুর ১০-কালশী-যমুনা ফিউচার পার্ক-নতুন বাজার-বাড্ডা।

ট্রাস্ট লাইন
রুটঃ মিরপুর ১০-ক্যান্টনমেন্ট-বনানী-নতুনবাজার।

তেঁতুলিয়া পরিবহন
রুটঃ শিয়া মসজিদ-শ্যামলি-আগারগাও-মিরপুর ১০-কালশী-বিশ্বরোড-এয়ারপোর্ট-উত্তরা-আব্দুল্লাহপুর।

জাবালে নূর পরিবহন ১, অভিজাত পরিবহন।
রুটঃআগারগাও-মিরপুর ১০-কালশী-বিশ্বরোড-এয়ারপোর্ট-উত্তরা-আব্দুল্লাহপুর।

আলিফ পরিবহন, রইচ পরিবহন
রুটঃ মিরপুর সনি সিনেমা হল – মিরপুর ১০ – কাজী পাড়া-শেওড়া পাড়া – মহাখালী – গুলশান ১ – বাড্ডা – রামপুরা – বনশ্রী।

হিমাচল পরিবহন
রুটঃ মিরপুর সনি সিনেমা হল – মিরপুর ১০ – কাজী পাড়া-শেওড়া পাড়া – মহাখালী – গুলশান ১ – বাড্ডা – রামপুরা – খিলগাঁও খিদমা হাসপাতাল।

বি আর টি সি
রুটঃ গাবতলি – মিরপুর ১ – মিরপুর ১০ – কাজী পাড়া-শেওড়া পাড়া – মহাখালী – কাকলী – বনানী – গুলশান ২ – নতুন বাজার – বাড্ডা – রামপুরা।

এভারেস্ট পরিবহন
রুটঃ রূপনগর আবাসিক – মিরপুর ২ – মিরপুর ১ – খামারবাড়ি – ফার্মগেট – গুলিস্তান – কেরানীগঞ্জ।

মিরপুর মিশন পরিবহন লি.
রুটঃ চিড়িয়াখানা – মিরপুর ১ – খামারবাড়ি – ফার্মগেট – প্রেস ক্লাব – মতিঝিল।

ইতিহাস পরিবহন
রুটঃ মিরপুর ১০ – মিরপুর ২ – মিরপুর ১ – গাবতলী – সাভার – নবীনগর – চন্দ্রা।

বিহঙ্গ পরিবহন
রুটঃ মিরপুর ১২ – মিরপুর ১১- মিরপুর ১০ – কাজীপাড়া – শেওড়া পাড়া, মহাখালী – গুলশান ১ – বাড্ডা – নতুন বাজার।

ঢাকা মেট্রো সার্ভিস
রুটঃ মিরপুর ১ – কল্যানপুর – শ্যামলী – আসাদগেট – শুক্রাবাদ – কলাবাগান – সাইন্সল্যাব – নিউ মার্কেট – নীলক্ষেত – আজিমপুর।

আশীর্বাদ পরিবহন, বিহঙ্গ পরিবহন
রুটঃ রূপনগর আবাসিক – মিরপুর ২ – মিরপুর ১ – কল্যানপুর – শ্যামলী – আসাদগেট – শুক্রাবাদ – কলাবাগান – সাইন্সল্যাব – নিউ মার্কেট – নীলক্ষেত – আজিমপুর।

নিউ ভিশন
রুটঃ চিড়িয়াখানা – মিরপুর ১ – খামারবাড়ি – ফার্মগেট – প্রেস ক্লাব – মতিঝিল।

দিশারী পরিবহন
রুটঃ চিড়িয়াখানা – মিরপুর ১ – গুলিস্তান – কেরানীগঞ্জ – বাবু বাজার ব্রীজ।

ট্রান্সসিলভা লি.
রুটঃ মিরপুর ১ – টেকনিক্যাল – কল্যাণপুর – আসাদগেট – কলাবাগান – সাইন্সল্যাব – শাহবাগ – প্রেস ক্লাব – গুলিস্তান – মতিঝিল – যাত্রাবাড়ী।

বিকল্প সার্ভিস ১/ঈ
রুটঃ মিরপুর ১৪ – মিরপুর ১ – টেকনিক্যাল – কল্যাণপুর – আসাদগেট – কলাবাগান – সাইন্সল্যাব – নিউ মার্কেট – নীলক্ষেত – আজিমপুর – টি এস সি – শাহবাগ – প্রেসক্লাব – গুলিস্তান – টিকাটুলি – যাত্রাবাড়ী।

আলিফ (বেঙ্গল) পরিবহন
রুটঃ মিরপুর ১০ – মিরপুর ১ – মাজার রোড – বেড়ি বাঁধ – আশুলিয়া – ফ্যান্টাসি কিংডম – নন্দন পার্ক।

পল্লবী লোকাল সার্ভিস
রুটঃ আসাদ গেট- শ্যামলী – কল্যাণপুর – টেকনিক্যাল – মিরপুর ১ – মিরপুর ২ – মিরপুর ৬ – চলন্তিকা মোড় – মিরপুর ৭ – মিরপুর ১১ – মিরপুর ১২।

বৃহত্তর মিরপুর, তিতাস পরিবহন
রুটঃ চিড়িয়াখানা – মিরপুর ১ – গাবতলী – সাভার – নবীনগর – চন্দ্রা।

ই.টি.সি পরিবহন
রুটঃ কালশী – মিরপুর সারে ১১ – মিরপুর ১০ – কাজী পাড়া – শেওড়া পাড়া – আই.ডি.বি – খামারবাড়ি – ফার্মগেট – কাওরান বাজার – শাহবাগ – গুলিস্তান – সদরঘাট।

স্বকল্প পরিবহন
রুটঃ চিড়িয়াখানা – মিরপুর ১ – মিরপুর ১০ – আগারগাঁও – বিজয় স্মরনী – ফার্মগেট – বাংলামোটর – মগবাজার – মালিবাগ – কমলাপুর।

নবকলি পরিবহন
রুটঃ মিরপুর ১ – কল্যাণপুর – শ্যামলী – আগারগাঁও – নতুন রাস্তা – মহাখালী ফ্লাই ওভার – বনানী – গুলশান ২ – নতুন বাজার।

বৈশাখী পরিবহন
রুটঃ সাভার-গাবতলী – কল্যাণপুর – শ্যামলী – আগারগাঁও – নতুন রাস্তা – মহাখালী – গুলশান ১ – বাড্ডা লিঙ্ক রোড – নতুন বাজার।

দেশ বাংলা পরিবহন, রুপকথা পরিবহন
রুটঃ গাবতলী – আব্দুল্লাহপুর।

কনক পরিবহন
রুটঃ মিরপুর ১২ – মিরপুর ১০ – কাকলী – এয়ারপোর্ট – উত্তরা – আব্দুল্লাহপুর।

প্রভাতী বনশ্রী পরিবহন লি.
রুটঃ গুলিস্তান-পল্টন-মালিবাগ-মগবাজার-সাতরাস্তা- নাবিস্কো- মহাখালী-বনানী-এয়ারপোরট-উত্তরা-আব্দুল্লাহপুর-টঙ্গী-গাজীপুর-কালিয়াকোইর।

৬ নং মতিঝিল বনানী ট্রান্সপোর্ট লি. (লোকাল)
রুট ১- মতিঝিল-গুলিস্তান-পল্টন-মালিবাগ-মগবাজার-কাওরান বাজার- ফার্মগেট – বিজয় স্মরনী- মহাখালী – গুলশান ১ – গুলশান ২ – নতুন বাজার।
রুট ২- মতিঝিল-গুলিস্তান-পল্টন-মালিবাগ-মগবাজার-সাত রাস্তা- নাবিস্কো – মহাখালী – গুলশান ১ – বাড্ডা লিংক রোড – নতুন বাজার।

৪ নং এলাইক ট্রান্সপোর্ট ও বি আর টি সি আরটিকুলাটেড Wi-FI বাস
রুটঃ বালুঘাট-ক্যান্টনমেন্ট-বিজয় স্মরনী- ফার্মগেট – বাংলামটর – শাহবাগ – পল্টন- গুলিস্তান – মতিঝিল।

৩ নং এয়ারপোর্ট-বঙ্গবন্ধু এভিনিউ পরিবহন
রুটঃ বঙ্গবাজার-হাইকোর্ট – শাহবাগ – ফার্মগেট- মহাখালী- বনানী-বিশ্বরোড-এয়ারপোর্ট-উত্তরা-আব্দুল্লাহপুর।

৯ নং বাস
রুটঃ কলেজ গেট- শ্যামলী –টেকনিক্যাল – মিরপুর ১ – মিরপুর ১২

অপেক্ষাকৃত পুরোনো রুট সিটি বাস সার্ভিসগুলো হলোঃ

মিরপুর ১২ টু গুলিস্তান/ সদরঘাটঃ
মিরপুর ১২ থেকে গুলিস্তান/ সদরঘাটে চলাচলকারী বাসগুলো হলো মিরপুর পরিবহন সার্ভিস লিঃ, মিরপুর-ইউনাইটেড সার্ভিস লিঃ ও বিহঙ্গ পরিবহন লিঃ।
মিরপুর পরিবহন সার্ভিস লিঃ গুলিস্তান গোলাপ শাহ মাজার পর্যন্ত যাত্রী পরিবহন করে। এই পরিবহনের গাড়িতে মিরপুর ১২ থেকে শেওড়াপাড়া পর্যন্ত যাত্রী উঠানো হয়।

মিরপুর ইউনাইটেড সার্ভিস লিঃ ও বিহঙ্গ পরিবহন লিঃ মিরপুর ১২ থেকে সদরঘাট ভিক্টোরিয়া পার্ক পর্যন্ত চলাচল করে।

মিরপুর টু মতিঝিলঃ
মিরপুর ১২ থেকে মতিঝিলগামী বাসগুলো হল বিআরটিসি, বিকল্প অটো সার্ভিস ও হাজী ট্রান্সপোর্ট।বিআরটিসি বাসগুলো মিরপুর ১২ থেকে মিরপুর ১০, আগারগাঁও, ফার্মগেট, শাহবাগ, হয়ে মতিঝিল পাশলা চত্বর পর্যন্ত চলাচল করে।বিকল্প অটো সার্ভিসের গাড়িগুলো বিআরটিসি বাসের রুটেই মতিঝিল পর্যন্ত চলাচল করে।হাজী ট্রান্সপোর্টের গাড়িগুলো একই পথে মতিঝিল নটরডেম কলেজ পর্যন্ত চলাচল করে। মিরপুর ১২ থেকে ছেড়ে ফার্মগেট পর্যন্ত যাত্রী উঠানো হয়। ফার্মগেটের পর যাত্রী উঠানো হয় না।

আজিমপুর টু কুড়িল বিশ্বরোডঃ
আজিমপুর ইডেন কলেজের সামনে থেকে কুড়িল বিশ্বরোড পর্যন্ত চলাচলকারী গাড়িগুলো হল উইনার ট্রান্সপোর্ট কোঃ লিঃ ও দ্বীপ বাংলা পরিবহন লিঃ। এগুলো কলাবাগান, কাওরান বাজার, বাড্ডা লিঙ্ক রোড হয়ে চলাচল করে।

দ্বীপ বাংলা পরিবহন লিঃ আজিমপুর থেকে সিটি কলেজ, কলাবাগান, পান্থপথ, কাওরান বাজার, নাবিস্কো, গুলশান লিংক রোড ও গুলশান ১ হয়ে কুড়িল বিশ্বরোড পর্যন্ত চলাচল করে। কিন্তু দ্বীপ বাংলা পরিবহন সাময়িক ভাবে বন্ধ আছে।

তবে উইনার ট্রান্সপোর্ট কোঃ লিমিটেডের গাড়িগুলো একইভাবে নাবিস্কো পর্যন্ত যাওয়ার পর মহাখালী হয়ে গুলশান ১ দিয়ে কুড়িল বিশ্বরোড পর্যন্ত চলাচল করে।

আজিমপুর টু উত্তরা হাউজ বিল্ডিং/আবদুল্লাহপুরঃ
আজিমপুর টু উত্তরা হাউজ বিল্ডিং/আবদুল্লাহপুর পর্যন্ত চলাচল করে সূচনা বি.আর.এফ, ফাল্গুন আর্ট ট্রান্সপোর্ট (প্রাঃ) লিঃ ও বিআরটিসি পরিবহন।
সূচনা বি.আর.এফ আজিমপুর এতিমখানা মোড় থেকে ছেড়ে কলাবাগান, আসাদগেট, ফার্মগেট, মহাখালী, বনানী, হয়ে উত্তরা হাউজ বিল্ডিং পর্যন্ত চলাচল করে। ইহা সাময়িক ভাবে বন্ধ আছে।

ফাল্গুন আর্ট ট্রান্সপোর্ট (প্রাঃ) লিঃ আজিমপুর গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের সামনে থেকে ছেড়ে সায়েন্সল্যাব, শাহবাগ, কাকরাইল, মৌচাক, মালিবাগ, রামপুরা, বাড্ডা, কুড়িল বিশ্বরোড হয়ে উত্তরা হাউজ বিল্ডিং পর্যন্ত চলাচল করে।

বিআরটিসি পরিবহনের গাড়িগুলো ইডেন কলেজের সামনে থেকে ছেড়ে সায়েন্সল্যাব, কলাবাগান, আসাদগেট, খামারবাড়ী, কাকলী, বনানী হয়ে আবদুল্লাহপুর পর্যন্ত চলাচল করে। ইহা সাময়িক ভাবে বন্ধ আছে।

সদরঘাট টু গাজীপুর ও চন্দ্রাঃ
সদরঘাট থেকে সুপ্রভাত পরিবহন, আজমেরী গ্লোরী লিঃ ও স্কাইলাইন এক্সপ্রেস লিঃ গাজীপুর ও চন্দ্রা পর্যন্ত চলাচল করে।
সুপ্রভাত পরিবহন সদরঘাট ভিক্টোরিয়া পার্ক এলাকা থেকে ছেড়ে কাকরাইল, মৌচাক, মালিবাগ রেলগেট, বাড্ডা, নতুন বাজার, বসুন্ধরা, কুড়িল, উত্তরা টঙ্গী হয়ে গাজীপুর পর্যন্ত চলাচল করে।

আজমেরী গ্লোরী লিঃ ও স্কাইলাইন এক্সপ্রেস লিঃ সদরঘাট ভিক্টোরিয়া পার্কের উত্তর পশ্চিম কর্নার থেকে ছেড়ে গুলিস্তান, কাকরাইল, মালিবাগ, মগবাজার, মহাখালী, এয়ারপোর্ট, আবদুল্লাহপুর, গাজীপুর বাইপাস হয়ে চন্দ্রা পর্যন্ত চলাচল করে ।

মোহাম্মদপুর টু মতিঝিলঃ
মোহাম্মদপুর থেকে মতিঝিলের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া গাড়িগুলো হল রাজা সিটি পরিবহন লিঃ, এফ টি সি এল, মৈত্রী পরিবহন লিঃ ও এটিসিএল।
রাজা সিটি পরিবহন লিঃ, এফ টি সি এল ও মৈত্রী পরিবহন লি এর গাড়িগুলো মোহাম্মদপুর থেকে ছেড়ে শংকর, স্টার কাবাব, ঝিগাতলা, সিটি কলেজ, সাইন্সল্যাব, শাহবাগ, প্রেসক্লাব, গুলিস্তান হয়ে আরামবাগ নটরডেম কলেজ পর্যন্ত চলাচল করে।

এটিসিএল পরিবহনের গাড়িগুলো মোহাম্মদপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে ছেড়ে আসাদগেট, শুক্রাবাদ, কলাবাগান, সিটি কলেজ, সাইন্সল্যাব, কাঁটাবন, শাহবাগ, প্রেসক্লাব, গুলিস্তান হয়ে আরামবাগ নটরডেম কলেজ পর্যন্ত চলাচল করে।

মোহাম্মদপুর টু নতুন বাজার/দক্ষিন বনশ্রীঃ
মোহাম্মদপুর থেকে নতুন বাজার/দক্ষিন বনশ্রী পর্যন্ত চলাচল করে এমন গাড়িগুলো হল তরঙ্গ বাস কোঃ, বিআরটিসি ও তরঙ্গ প্লাস ট্রান্সপোর্ট লিঃ
তরঙ্গ বাস কোঃ ও বিআরটিসি পরিবহনের গাড়িগুলো মোহাম্মদপুর থেকে ছেড়ে আসাদগেট, ফার্মগেট, মহাখালী, তিতুমীর কলেজ, গুলশান-১, বাড্ডা হয়ে নতুন বাজার পর্যন্ত চলাচল করে।

তরঙ্গ প্লাস ট্রান্সপোর্ট লিঃ মোহাম্মদপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে ছেড়ে শংকর, ধানমন্ডি ১৫, ঝিগাতলা, সায়েন্সল্যাব, শাহবাগ, কাকরাইল, মালিবাগ রেলগেট, রামপুরা বাজার হয়ে দক্ষিন বনশ্রী পর্যন্ত চলাচল করে।

মিরপুর ১৪ টু খিলগাঁওঃ
মিরপুর ১৪ থেকে খিলগাঁও তালতলা মার্কেট পর্যন্ত চলাচল করে বাহন পরিবহন লিঃ। এই পরিবহনের গাড়িই মিরপুর ১৪ থেকে ছেড়ে মিরপুর ১০, মিরপুর ১, টেকনিক্যাল, কল্যানপুর, আসাদগেট, সায়েন্সল্যাব, শাহবাগ, প্রেসক্লাব, মতিঝিল, কমলাপুর, মুগদা হয়ে খিলগাঁও পর্যন্ত চলাচল করে।

মিরপুর ১৪ টু আজিমপুরঃ
নিসর্গ পরিবহন লিঃ মিরপুর ১৪ বাসস্ট্যান্ড থেকে ছেড়ে মিরপুর ১০ কাজীপাড়া, আগারগাঁও, শ্যামলী, আসাদগেট, মোহাম্মদপুর, ধানমন্ডি ১৫, ঝিগাতলা, সায়েন্সল্যাব, ঢাকা কলেজ, নিউ মার্কেট, নীল ক্ষেত, ইডেন কলেজ হয়ে আজিমপুর পর্যন্ত চলাচল করে।

মিরপুর ১৪ টু মতিঝিলঃ
শতাব্দী পরিবহন লিঃ মিরপুর ১৪ বাসষ্ট্যান্ড থেকে মিরপুর ১৪, মিরপুর ১, শ্যামলী, আসাদগেট, মোহাম্মদপুর, শংকর, ধানমন্ডি ১৫, ঝিগাতলা, কাঁটাবন, শাহবাগ, গুলিস্তান হয়ে মতিঝিলের নটরডেম কলেজ পর্যন্ত চলাচল করে।

মিরপুর ১৪ টু কাকলী-বনানীঃ
মিরপুর ১৪ বাসষ্ট্যান্ড থেকে কাকলী বনানী পর্যন্ত চলাচলকারী একমাত্র গাড়ি হল ক্যান্টনমেন্ট মিনি সার্ভিস। ক্যান্টনমেন্ট মিনি সার্ভিস মিরপুর ১৪ থেকে কচুক্ষেত, সৈনিক ক্লাব হয়ে কাকলী-বনানী পর্যন্ত চলাচল করে।

এছাড়া অন্যান্য সিটি বাস সার্ভিসগুলো হলোঃ

রংধনু এক্সপ্রেস
পোস্তগোলা থেকে মোহাম্মদপুর (আদাবর)
রুটঃ আদাবর – শিয়া মসজিদ – শ্যামলী – কলেজ গেট – আসাদগেট – কলাবাগান – সায়েন্সল্যাবরেটরি – শাহবাগ – কাকরাইল – ফকিরাপুল – মতিঝিল – দয়াগঞ্জ।
বোরাক পরিবহন
পলাশী থেকে মেঘনাঘাট
রাজধানী এক্সপ্রেস
মোহাম্মদপুর (শিয়া মসজিদ) থেকে মতিঝিল
রুটঃ শ্যামলী-আসাদগেট-কলাবাগান-সায়েন্সল্যাব-কাঁটাবন-শাহবাগ-গুলিস্তান।

সুপার বাস
মতিঝিল থেকে নন্দন পার্ক
রুটঃ গুলিস্তান-শাহবাগ-ফার্মগেট-শ্যামলী-গাবতলী-সাভার-নবীনগর।

ঢাকা পরিবহন
ঢাকা (মতিঝিল) থেকে গাজীপুর
রুটঃ গুলিস্তান-শাহবাগ-ফার্মগেট-বনানী-উত্তরা-গাজীপুর-শীববাড়ী।

বলাকা পরিবহন
সায়েদাবাদ থেকে গাজীপুর
রুটঃ মতিঝিল-কমলাপুর-মালিবাগ-মগবাজার-নাবিস্কো-মহাখালী-বনানী-খিলক্ষেত-এয়ারপোরট-উত্তরা-টঙ্গী-বোর্ড বাজার-গাজীপুর-শীববাড়ী।

হিমালয় ট্রান্সপোর্ট
নারায়নগঞ্জ এর মদনপুর থেকে যাত্রাবাড়ী, বাংলাদেশ ব্যাংক, মগবাজার, মহাখালী হয়ে এটি টঙ্গীব্রীজ চলে যায়।

লাব্বায়েক পরিবহন
যাত্রাবাড়ী থেকে সায়দাবাদ, মুগদা, খিলগাঁও, মালিবাগ, মগবাজার, কারওয়ান বাজার, ফার্মগেট, আসাদগেট, শ্যামলী, গাবতলী হয়ে সাভার পর্যন্ত যাতায়াত করে।

আসন ব্যবস্থাঃ
ঢাকায় চলাচলকারী সিটি সার্ভিসগুলোতে সর্বনিম্ন ৩৫ ও সর্বোচ্চ ৬০ আসনের ব্যবস্থা রয়েছে।
সিটিং সার্ভিসগুলো আসন মাফিক যাত্রী পরিবহন করলেও, কাউন্টার সার্ভিসের গাড়িগুলো নির্ধারিত আসনের বাইরে দাঁড়িয়েও যাত্রী পরিবহন করে থাকে।

টিকেট সংগ্রহ/ভাড়াঃ
কাউন্টার সার্ভিসের গাড়িতে ভ্রমণের জন্য নির্ধারিত কাউন্টারে এসে টিকেট সংগ্রহ করতে হয়। বাসে উঠার জন্য লাইনে দাঁড়াতে হয়।
সিটিং সার্ভিসের ভেতরে ভাড়া পরিশোধ করতে হয়। সিটিং সার্ভিসের গাড়িতে উঠার জন্যও লাইনে দাড়াতে হয়। আসন খালি থাকা সাপেক্ষে সিটিং সার্ভিসের গাড়িতে যাত্রী উঠানো হয়।

যাত্রী উঠা নামাঃ
কাউন্টার সার্ভিসের গাড়িগুলোতে কাউন্টার থেকেই যাত্রী উঠানো নামানো হয়। তবে গাড়ি সিগনালে দাড়ালে যাত্রীগন নামতে পারেন কিন্তু উঠতে পারেন না। সিটিং সার্ভিসের গাড়িগুলোতে ছেড়ে যাওয়া স্থান থেকে আসন অনুযায়ী যাত্রী উঠানোর পর আসন খালি থাকা সাপেক্ষে পরবর্তী স্টপেজ থেকে যাত্রী উঠানো হয়। এই সার্ভিসের যাত্রীগন যেকোন স্থানে নামতে পারেন।

গাড়ি চলাচলের সময়সূচীঃ
সিটি সার্ভিসের গাড়িগুলো সকাল ৬টা থেকে রাত ১২ টা পর্যন্ত অবিরামভাবে চলাচল করে। তবে কাউন্টার সার্ভিসের গাড়িগুলো সকাল ৬টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলাচল করে থাকে।
** সকাল ৭ টা থেকে সকাল ১০ টা পর্যন্ত ও বিকাল ৫টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত অফিসগামী যাত্রীদের চাপ বেশি থাকে।

মালামাল পরিবহনঃ
সিটি সার্ভিসের গাড়ির ছাদে মালামাল পরিবহনের ব্যবস্থা নেই।তবে সিটি সার্ভিসের গাড়িগুলোতে বড় লাগেজ বা ২০ কেজি ওজনের মালামাল হলে যাত্রীকে আসনে মালামাল রেখে আসনের ভাড়া প্রদান করতে হয়।

কাউন্টার সার্ভিস গাড়িতে মালামাল বহনের জন্য কাউন্টারে পন্যের ভাড়া দিয়ে হেলপারের সহায়তায় পন্য রাখার স্থান বা আসন নিশ্চিত করতে হয়।
সিটিং সার্ভিস গাড়িতে মালামাল পরিবহনের ক্ষেত্রে মালামালের ভাড়া বাসের ভেতরে প্রদান করতে হয়।পন্য উঠানো নামানোতে গাড়ির হেলপার সহযোগিতা করে থাকে।

বিবিধঃ
কোম্পানীর সার্ভিস সম্পর্কে কোন অভিযোগ ও তথ্য থাকলে টিকেটের গায়ে দেয়া মোবাইল নাম্বারে যোগাযোগ করতে হয়।
যেসকল গাড়ির টিকেট নেই সেসকল গাড়ির যোগাযোগ নম্বর গাড়ির ভেতরেই কাগজে লিখে সাটানো থাকে।

বিনা টিকেটে/ভাড়ায় কোন ভাবেই ভ্রমণ করা যায় না।নির্ধারিত ভাড়ার অতিরিক্ত পথ ভ্রমণ করলে জরিমানা প্রদান করতে হয়। যাত্রাকালে যে কোন সময় টিকেট চেক করা হতে পারে তাই নির্ধারিত গন্তব্য পর্যন্ত টিকেট সংরক্ষণ করতে হয়।ছাত্রদের জন্য হাফ টিকেটের ব্যবস্থা রয়েছে। এজন্য আইডি কার্ড প্রদর্শন করতে হয়।১২ বছরের উর্ধ্বে সকল শিশুদের ভাড়া প্রদান করতে হয়।

মহিলা ও প্রতিবন্ধীদের জন্য সংরক্ষিত ৯টি আসনে পুরুষদের বসা নিষেধ। বসলেও মহিলা ও প্রতিবন্ধী যাত্রী বাসে উঠলে সিট ছেড়ে দিতে হয়।
সিটিং সার্ভিসের গাড়িগুলোতে ওয়েবিল সাইনের পর গেটলক করে দেওয়া হয়।

তথ্য কারটেসিঃ
১। যাযাবর পৃথিবী
২। বি আর টি সি অফিস।
৩। গুগল, বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল ইত্যাদি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here