শিখে নিন কাপড় থেকে ৭ ধরণের কঠিন দাগ দূর করার জাদুকরী কৌশলগুলো

6
3143

কাপড়ের দাগ খুবই যন্ত্রণাদায়ক সমস্যাগুলোর মধ্যে অন্যতম। বিশেষ করে পছন্দের কাপড়ে দাগ লাগলে খুবই বিরক্ত লাগে এবং মনও খারাপ হয়ে যায়। কারণ এমন অনেক দাগ রয়েছে যা সহজে তোলা যায় না।

১) তেলের দাগ তোলার পদ্ধতি

কাপড়ে তেল পড়ার সাথে সাথে একটি টিস্যু পেপার চেপে ধরে কাপড় থেকে তেল শুষে নিন ভালো করে। এরপর কাপড়টি পানি দিয়ে ভিজিয়ে নিয়ে এতে অল্প পানি ও ডিটারজেন্ট দিয়ে ডিটারজেন্টের পেস্ট তৈরি করে লাগিয়ে রাখুন ১৫-২০ মিনিট। এরপর গরম পানিতে ভালো করে কাপড় ধুয়ে নিন তেলের দাগ উঠে যাবে। এই পদ্ধতিতে গ্রিজের দাগও তুলে ফেলতে পারবেন সহজেই।

২) কালির দাগ তোলার পদ্ধতি

কাপড়ে কালির দাগ লেগে গেলে কর্ণফ্লাওয়ারের সাথে কিছুটা দুধ মিশিয়ে পেস্টের মতো তৈরি করে নিন। এই পেস্ট দাগের উপরে লাগিয়ে কয়েকঘণ্টা রেখে শুকিয়ে যেতে দিন। তারপর একটি ব্রাশ দিয়ে আলতো করে ঘষে তুলে নিন। দাগ থাকবে না একেবারেই।

৩) চা, কফি, সফট ড্রিংকস ও জুস ধরণের জিনিসের দাগ তোলার পদ্ধতি

এই ধরণের দাগ খুবই জেদী হয়ে থাকে, সহজে উঠতে চায় না। এই ধরণের দাগ লাগলে কাপড়টি ১০ মিনিট পানিতে ভালো করে ভিজিয়ে রাখুন। এরপর কাপড় ধোয়ার সাবান বা লিক্যুইড ডিটারজেন্ট বা ডিজারজেন্টের পেস্ট তৈরি করুন পানির সাহায্যে। এরপর এই পেস্টটি কাপড়ের দাগের উপর লাগিয়ে রাখুন। হালকা শুকিয়ে উঠলে কাপড়টি গরম পানিতে ডিটারজেন্ট দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দাগ উঠে যাবে।

৪) ঘামের দাগ তোলার পদ্ধতি

কাপড়ে ঘামের দাগ আরেকটি বিরক্তিকর যন্ত্রণার বিষয়। এই দাগ তুলতে ১/৪ মগ পানিতে ৪ টেবিল চামচ বেকিং সোডা দিয়ে মিশ্রন তৈরি করুন। এই মিশ্রণটি কাপড়ের ঘামের দাগের অংশে ভালো করে লাগিয়ে নিন এবং একটি পুরোনো টুথব্রাশ দিয়ে ঘষে নিন। ১ ঘণ্টা এভাবেই কাপড়টি রেখে মিশ্রণটি বসে যেতে দিন কাপড়ে। এরপর স্বাভাবিকভাবে কাপড় ধুয়ে ফেলুন। শুকিয়ে গেলে ঘামের দাগ দেখতে পাবেন না পছন্দের কাপড়ে।

৫) চকলেটের দাগ তোলার পদ্ধতি

চকলেট কার না পছন্দ। কিন্তু চকলেটের দাগ কাপড়ে লাগা কারোরই পছন্দ নয়। অসাবধানতাবশত যদি দাগ লেগেই যায় তাহলে এই সমস্যা সমাধানে প্রথমেই যতোটা সম্ভব চকলেট দ্রুত তুলে ফেলার চেষ্টা করুন। এরপর ডিটারজেন্ট মেশানো গরম পানিতে কাপড়টি ভিজিয়ে রাখুন। যদি এরপরও বাদামী দাগ থেকে যায় কাপড়ে তাহলে পানিতে সামান্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার মিশিয়ে আরও খানিকক্ষণ ভিজিয়ে রাখুন। এরপর গরম পানি দিয়েই কাপড় ধুয়ে নিন।

৬) মেহেদীর দাগ তোলার পদ্ধতি

শখ করে মেহেদী লাগাতে গিয়ে কাপড়ে দাগ লেগে গেলে মন খারাপ করবেন না। পানি ও বেকিং সোডা মিশিয়ে পেস্টের মতো তৈরি করে দাগের উপরে দিন। শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ঘষে ঘষে তুলে ফেলুন। এতেও মেহেদীর দাগ অনেকটাই চলে যাবে।

৭) মেকআপের দাগ তোলার পদ্ধতি

নারীরা মেকআপ করে গিয়ে একটু আধটু দাগ কাপড়ে লাগিয়েই ফেলতে পারেন। মেকআপের দাগ যদি কাপড় থেকে তুলতে সামান্য পানিতে ডিটারজেন্ট মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে দাগের উপরে লাগিয়ে রাখুন। এরপর শুকিয়ে উঠলে আলতো করে ঘষে তুলে ফেলুন। দাগ থাকবে না। সূত্রঃ দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়া

6 COMMENTS

  1. I visited multiple websites except the audio quality for audio
    songs current at this site is actually fabulous.
    I’ve been browsing online more than 4 hours today, yet I never found any interesting
    article like yours. It is pretty worth enough for me.

    In my view, if all website owners and bloggers made good content as you did, the net will be much more useful than ever before.
    I have been surfing online more than 3 hours today,
    yet I never found any interesting article like yours.

    It’s pretty worth enough for me. In my view, if all webmasters and bloggers
    made good content as you did, the web will be a lot more useful
    than ever before. http://foxnews.net

  2. Ⅿy proցrammer is trying to convincе me to move to .net from PHP.

    I have always disliқed the iⅾea becɑuѕe of the exⲣenses.
    But he’s tryiong none the less. Ι’ve been using WordPress on a number of websites
    foг about a year and am nervous аbout switching to another platform.
    I have heard very good things about blogengine.net.
    Is therе a way I can transfer all my wordpress postѕ intο it?

    Any hеlp would be really apрreсiated!

  3. Can I just say what a comfort to uncover somebody who really knows what they are talking about on the internet.
    You certainly realize how to bring an issue to light and make it important.
    More people have to read this and understand this side of your story.
    It’s surprising you aren’t more popular since you
    definitely possess the gift.

  4. I do agree with all the ideas you have presented for your post.
    They are very convincing and will definitely work. Nonetheless, the posts are very short for beginners.
    May you please extend them a little from next time? Thank you
    for the post.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here