সপ্তাহে কতবার শ্যাম্পু করা চুলের জন্য ভালো?

0
1371

চুলের যত্ন নিতে শ্যাম্পু আমরা সবাই করে থাকি, কিন্তু আপনাদের কি শ্যাম্পুর সঠিক ব্যবহার সম্পর্কে জানা আছে! না থাকলে জেনে নিন। সপ্তাহে কতবার শ্যাম্পু করা উচিত।

সপ্তাহে কতবার শ্যাম্পু করা চুলের জন্য ভালো? এই প্রশ্নের কোন স্পষ্ট উত্তর নেই। সাধারণত বলা হয় যে চুলে শ্যাম্পু কম করা ভালো। শ্যাম্পু বেশি করলে চুল শুষ্ক হয়ে যায় বেশি।বিশেষজ্ঞদের মতামত যদি জানতে চান তাহলে নির্দিষ্ট কোন কারন নেই শ্যাম্পু কম বা বেশি করার। শ্যাম্পু করা অনেকটা নিজের ব্যাক্তিগত রুচির মধ্যেও পরে। কতদিন অন্তর শ্যাম্পু করা উচিত তা নিজের ওপর অনেকটা নির্ভর করে।

চুল অপরিছন্ন রাখাটা কোন সুস্থ মানুষের কাম্য নয়। তাই চুল ময়লা হয়ে গেলেই শ্যাম্পু করা উচিত।কিন্তু সাথে সাথে মাথায় রাখা ভালো চুলের যত্ন নিতে অধিক শ্যাম্পু করা উচিত নয়। চুলের ধরন অনুযায়ী শ্যাম্পু করা উচিত। তাছাড়া শ্যাম্পুর কোম্পানীর ওপর নির্ভর করে যে সপ্তাহে কতবার শ্যাম্পু করা উচিত।

চুলের ওপর শ্যাম্পুর প্রভাব

সবার প্রথমে জেনে নেওয়া যাক শ্যাম্পু করলে চুলের ওপর কি কি প্রভাব পরে। আমাদের মাথা থেকে একধরণের ন্যাচারাল অয়েল বের হয় যা চুলকে চিটচিটে করে দেয়। ফলে ধুলো বালি, ময়লা জমতে থাকে। শ্যাম্পু এই ময়লা দূর করে সহজে।

শ্যাম্পুতে থাকে আম্লাসিফায়ার। যা চুলের থেকে ময়লা, ধুলো বালি, ও চুলের ক্ষতিকারক সব পদার্থকে দূর করে দেয়। কিন্তু শ্যাম্পু বেশি করলে চুল শুষ্ক হয়ে যায়। ফলে চুল পরে যাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। চুলের কথা মাথায় রেখে বলা যায় যে শ্যাম্পু প্রয়োজন অনুযায়ী করা ভালো। কারন অতিরিক্ত শ্যাম্পু চুলের ক্ষতি করতে পারে।

রোজ শ্যাম্পু করা যায় কি

রোজ শ্যাম্পু তাদের জন্য উচিত যারা বাইরে পলিউসানের মধ্যে সারাদিন থাকেন, বা যাদের চুলের ঘনত্ব অনেক কম। তাছাড়া যাদের মাথায় তেল জমে বেশি ঘাম থেকে, তাদের রোজ শ্যাম্পু করা চুলের জন্য ভালো। অন্যদিকে যাদের চুল শুষ্ক প্রকৃতির বা কোঁকড়ানো তাদের কম শ্যাম্পু করা উচিত। তাদের জন্য সবচেয়ে ভালো কন্ডিশানার শ্যাম্পুর মত ব্যবহার করা।

যদি চুলে স্টাইল করার হয় তাহলে শ্যাম্পু কম করা ভালো। চুলে শ্যাম্পু করা থাকলে চুল সেট করতে সমস্যা হয়। তাই যখন চুলে কোন স্টাইল এপ্লাই করার হয় চেষ্টা করবেন চুল যেন বেশি শুষ্ক না থাকে। তবে খেয়াল রাখার বিষয় হল স্টাইল করার সময় চুল যেন পরিষ্কার থাকে।

চুলের ধরন অনুযায়ী শ্যাম্পু করুন

আপনার চুল যদি অয়লি হয় তাহলে সপ্তাহে ৩ থেকে ৪ দিন শ্যাম্পু করতে পারেন। বাইরে রোজ বেরতে হলে রোজ শ্যাম্পু করা ভালো। মাথায় জমে থাকা ওয়েল বের করে চুলকে মজবুজ ও সুন্দর করে তোলে।

শুষ্ক চুল হলে সপ্তাহে ২ বার শ্যাম্পু করা ভালো। না হলে চুল আরও অতিরিক্ত শুষ্ক হবার সম্ভাবনা থাকে। চুলের ঘনত্ব কম হলে সপ্তাহে একদিন অন্তর একদিন শ্যাম্পু করা উচিত।

কারন না হলে চুলে ময়লা জমে চুল পরে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেবে। তাই শ্যাম্পু করে চুল পরিষ্কার রাখা জরুরী। যাদের চুলের ঘনত্ব বেশি তাদের রোজ শ্যাম্পু না করা উচিত। চুলের ঘনত্ব কমে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

শ্যাম্পু করার সময় যে বিষয়গুলি অবশ্যই মনে রাখবেন

চুলের ধরণের কথা মাথায় রেখে শ্যাম্পু নির্বাচন করা উচিত। অয়লি চুলের জন্য যে শ্যাম্পু ব্যবহার করা যেতে পারে তা শুষ্ক চুলের জন্য কখনওই ব্যবহার করা ঠিক নয়।একই শ্যাম্পু অনেকদিন ধরে কন্টিনিউয়াস ব্যবহার করা সঠিক নয়। ব্র্যান্ড মাঝে মাঝে বদলে শ্যাম্পু ব্যবহার করা চুলের জন্য উপকারী।

শ্যাম্পু করার সময় মাথার ত্বকে অতিরিক্ত চাপ দেওয়া ঠিক না। চুলের গোড়া আলগা হয়ে যায়। ফলে চুল উঠে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। তাই শ্যাম্পু করার সময় খেয়াল রাখা রাখবেন যে মাথায় আস্তে আস্তে যাতে শ্যাম্পুটা লাগানো হয়।

একদম হালকা গরম জলে শ্যাম্পু করে চুল ধুলে চুল স্মুথ হয় বেশি। সাইন করতে থাকে।চুলের যত্ন নেওয়া খুবই জরুরী। তবে মাথায় রাখবেন অনেক সময় শরীরের অন্যান্য সমস্যা থেকেও চুল পরে যাওয়া বা শুষ্ক হয়ে যাওয়া ও অন্যান্য অনেক সমস্যা দেখা দেয় চুলকে কেন্দ্র করে। তাই চুলের সমস্যা হলে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী চুলের যত্ন নেওয়া উচিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here